সরকারি সুবিধা চান ৫৯ অতিক্রান্ত কলেজ শিক্ষকরা - কলেজ - Dainikshiksha

সরকারি সুবিধা চান ৫৯ অতিক্রান্ত কলেজ শিক্ষকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক |

সদ্য সরকারি হওয়া ২৯৬ কলেজের ৫৯ বছর অতিক্রান্ত বয়সী শিক্ষক-কর্মচারীরা সরকারিকরণের সব সুযোগ-সুবিধা দাবি করেছেন। তারা বলছেন, সরকারিকরণের দীর্ঘসূত্রতায় একহাজারেরও বেশি প্রবীণ শিক্ষক-কর্মচারী চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। ২০১৬ খ্রিস্টাব্দের নিয়োগ নিষেধাজ্ঞা থেকে সরকারিকরণের দিন ধার্য করা হলে সরকারি চাকরি থেকে অবসরের বয়স ৫৯ অতিক্রম করতাম না। এমনকি ডিড অব গিফট সম্পন্ন হওয়ার দিন থেকে সরকারিকরণ ধরা হলেও সরকারি সুযোগ-সুবিধা পেতাম।

 সরকারিকরণের সুযোগ সুবিধা পেতে তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহানুভূতি কামনা করেছেন। মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে সদ্য সরকারিকৃত কলেজসমূহের চাকরির বয়স ৫৯ উত্তর শিক্ষক-কর্মচারী আহবায়ক কমিটির সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

আহবায়ক কমিটির সদস্য সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ সরকারি বেগম নূরুন নাহার তর্কবাগীশ অনার্স কলেজের অধ্যক্ষ মো: আব্দুল মোত্তালিব শেখ বলেন, মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপন জারি করতে দেরি করায় আমরা সরকারি সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। আমরা চাই ৮ আগস্ট (সরকারিকরণ কার্যকরের দিন) কিংবা এর পূর্বে অথচ ডিড অব গিফটের পরে যারা ৫৯ বছর অতিক্রান্ত হয়েছেন, তাদেরও সরকারি সুযোগ-সুবিধা দিতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে প্রবীণ শিক্ষকরা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুগান্তকারী সিদ্ধান্তে ২৯৬ কলেজকে নতুন করে সরকারি করা হয়েছে। কিন্তু নতুন আত্তীকরণ বিধিমালা অনুসারে ৮ আগস্ট থেকে সরকারিকরণ কার্যকরের দিন থেকে কিংবা তার আগে যেসব শিক্ষক-কর্মচারীর বয়স ৫৯ বছর অতিক্রম করেছেন তাদের আত্তীকরণের আওতায় আসা নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

বক্তারা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীন হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন। তিনিই প্রথম প্রাথমিক স্কুল সরকারিকরণসহ বেসরকারি শিক্ষকদের নানা অর্থনৈতিক সুবিধার আওতায় আনেন। 

শিক্ষকরা বলেন, ২০১৬ খ্রিস্টাব্দে নিয়োগ নিষেধাজ্ঞা থেকে সরকারিকরণের দিন ধার্য করা হলে তারা সরকারি চাকরি থেকে অবসরের বয়স ৫৯ অতিক্রম করতেন না। এমনকি ‘ডিড অব গিফট’ সম্পন্ন হওয়ার দিন থেকে সরকারিকরণ ধরা হলেও তারা সরকারি সুযোগ-সুবিধা লাভ করতে পারতেন। নিয়োগ নিষেধাজ্ঞার দিন থেকে সরকারিকরণ কার্যকর করে তাদেরও সরকারি সুবিধার আওতায় আনার জোর দাবি জানান তারা। এব্যাপারে তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহানুভূতি কামনা করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত ডিগ্রি কলেজের  সহকারী অধ্যাপক মো: নূরুল ইসলাম খান, কুড়্রিগ্রামের ভুরুঙ্গামারী ডিগ্রি কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ মো. মুকুল চৌধুরী,  ভুরুঙ্গামারী সরকারি কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ মো: সফিকুল ইসলাম, সরকারি লালমনিরহাটের হাতিবান্ধা আলিমুদ্দিন কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রধান মো: নজরুল ইসলাম, সরকারি শেরপুর কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো: মোসলেম উদ্দিন কাজী, সরকারী কালুখালী কলেজের অধ্যক্ষ এ কেএম জয়নাল আবেদীন, গাইবান্ধার সরকারী সুন্দরগঞ্জ বি, ডব্লিউ ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো: আলমগীর, সুনামগঞ্জের ছাতক সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো: আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

১৯ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি গঠন

সংবাদ সম্মেলন শেষে উপস্থিত শিক্ষকদের সর্বসম্মতিক্রমে ১৯ সদস্য বিশিষ্ট সদ্য সরকারিকৃত কলেজগুলোতে ৫৯ উত্তর বয়সের শিক্ষক-কর্মচারীদের চাকরি সরকারিকরণ আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ সরকারি বেগম নূরুন নাহার তর্কবাগীশ অনার্স কলেজের অধ্যক্ষ মো: আব্দুল মোত্তালিব আহ্বায়ক, মো: মুসলিম উদ্দিন কাজী যুগ্ম আহ্বায়ক এবং নূরুল ইসলাম খান সদস্য সচিব নির্বাচিত হয়েছেন। 

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন,মর্তুজা আলী, জয়নাল আবেদিন, আনোয়ার হোসেন, রফিকুল ইসলাম,শামছুল আলম, কবির উজ্জামান,রশিদুল ইসলাম,আলমগীর হোসেন, আব্দুল মাজেদ, রতন সেন,গোবিন্দ চন্দ্র সরকার, মো: মাহবুব আহমেদ, মেসবাউজ্জামান মোল্লা, নুরনবী চৌধুরী, আব্দুর রহমান,অধ্যক্ষ মুকু ল চৌধুরী, মো: মোজাহার আলী।

‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ - dainik shiksha ‘শিক্ষকদের অবসর-কল্যাণ সুবিধার তহবিল বন্ধ করে পেনশন চালু করতে হবে’ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা ১০ মে এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে - dainik shiksha এসএসসির ফল ৫ বা ৬ মে চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী - dainik shiksha চাঁদা বৃদ্ধির পরও ২১৬ কোটি টাকা বার্ষিক ঘাটতি : শরীফ সাদী একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে - dainik shiksha একাদশে ভর্তির নীতিমালা জারি, আবেদন শুরু ১২ মে সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ২০১৯ খ্র্রিস্টাব্দের স্কুলের ছুটির তালিকা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website