আন্দোলনের হুঁশিয়ারি শিক্ষকদের - এমপিও - দৈনিকশিক্ষা

আন্দোলনের হুঁশিয়ারি শিক্ষকদের

নিজস্ব প্রতিবেদক |

দীর্ঘদিন ধরে চলমান সঙ্কটের সমাধানে এবার বছরের শুরুতেই আন্দোলন শুরু করেছেন সরকারী-বেসরকারী স্কুল-কলেজের শিক্ষকরা। সোমবার রাজধানীতে পৃথক কর্মসূচী থেকে দাবি আদায়ে বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছে শিক্ষক সংগঠনগুলো। সংবাদ সম্মেলন করে দাবি আদায়ে আমরণ অনশনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষকরা। এমপিওভুক্তি ও জনবল নিয়োগের দাবি তুলে মানববন্ধন করেছেন বেসরকারী কলেজের অনার্স-মাস্টার্সের শিক্ষকরা। ‘জ্যেষ্ঠ প্রভাষক’ পদ বিলুপ্ত করে ‘সহকারী অধ্যাপক’ পদ বহাল রাখার দাবি জানিয়েছেন মাদ্রাসার শিক্ষকরা।

জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে ৫০ শতাংশ কার্যকর চাকরিকালের ভিত্তিতে শিক্ষকদের টাইমস্কেল বহাল রাখাসহ তিন দফা দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক কল্যাণ সমিতি। দাবি আদায় না হলে আমরণ অনশনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন সমিতির নেতারা। সংবাদ সম্মেলন সমিতির মহাসচিব মোঃ মুনছুর আলী বলেন, শিক্ষাই জাতির মেরুদণ্ড এবং তার মূল ভিত্তি হচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষা।

এই বাস্তবতা অনুধাবন করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশে দুর্বল অর্থনৈতিক অবস্থার মাঝে ১৯৭৩ সালে ৩৭ হাজার বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কর্মরত শিক্ষকদের চাকরি জাতীয়করণ করেছিলেন। তারই ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে অবহেলিত শিক্ষকদের সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধির জন্য ২০১৩ সালে শিক্ষক মহাসমাবেশে ঘোষণার মাধ্যমে ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কর্মরত ১ লাখ ৪ হাজার ৭৭২ জন শিক্ষকের চাকরি জাতীয়করণ করে শিক্ষক ও তাদের পরিবারের মাঝে চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন।

শিক্ষকদের দাবিগুলো হচ্ছে ২০২০ সালের আগস্ট মাসে অর্থ মন্ত্রণালয়ের পরিপত্রটি প্রত্যাহার করে ৫০ শতাংশ কার্যকর চাকরিকালের ভিত্তিতে টাইমস্কেল বহাল রাখা, ৫০ শতাংশ কার্যকর চাকরিকালের ভিত্তিতে শিক্ষকদের জ্যেষ্ঠতা ও পদোন্নতি প্রদান করা এবং অধিগ্রহণ করা বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এসএমসি তৈরি করা প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ পাওয়া প্রধান শিক্ষকদের নাম গেজেট থেকে বাদ পড়ায় সেটি গেজেটে অন্তর্ভুক্ত করা। এসব দাবি আগামী ২২ জানুয়ারির মধ্যে আদায় না হলে ২৪ জানুয়ারি সব জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হবে। একইসঙ্গে ওই তারিখের মধ্যে দাবি আদায় না হলে ঢাকায় অবস্থান ও আমরণ অনশন কর্মসূচী পালন করা হবে। ‘বঙ্গবন্ধু স্মারক বর্ষপুঞ্জি-২০২১’ এর মোড়ক উন্মোচনের মধ্য দিয়ে এমপিওভুক্তি ও জনবল নিয়োগের দাবিতে বেসরকারী কলেজের অনার্স-মাস্টার্স স্তরের শিক্ষকরা মানববন্ধন করেছেন।

আপাতত ক্লাস সপ্তাহে ১ দিন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha আপাতত ক্লাস সপ্তাহে ১ দিন : শিক্ষামন্ত্রী পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসির ফল প্রকাশে আইন পাস, দু’দিনেই প্রজ্ঞাপন - dainik shiksha পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসির ফল প্রকাশে আইন পাস, দু’দিনেই প্রজ্ঞাপন ৯ম গ্রেডে উন্নীত করার দাবিতে একাট্টা হচ্ছে সব সরকারি কর্মচারী সংগঠন - dainik shiksha ৯ম গ্রেডে উন্নীত করার দাবিতে একাট্টা হচ্ছে সব সরকারি কর্মচারী সংগঠন নো মাস্ক নো স্কুল, ক্লাস হবে শিফটে : দুশ্চিন্তায় বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান - dainik shiksha নো মাস্ক নো স্কুল, ক্লাস হবে শিফটে : দুশ্চিন্তায় বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাংবাদিকতার অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছিলেন মিজানুর রহমান : স্মরণসভায় জেলা জজ - dainik shiksha সাংবাদিকতার অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছিলেন মিজানুর রহমান : স্মরণসভায় জেলা জজ প্রাথমিকে ঝরে পড়ার হার প্রায় শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে, দাবি প্রতিমন্ত্রীর - dainik shiksha প্রাথমিকে ঝরে পড়ার হার প্রায় শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে, দাবি প্রতিমন্ত্রীর মাদরাসা শিক্ষার সমস্যার সমাধান দ্রুতই : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষার সমস্যার সমাধান দ্রুতই : শিক্ষা উপমন্ত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইড লাইন প্রকাশ, তিন ফুট দূরত্বে ক্লাসরুমের বেঞ্চ - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইড লাইন প্রকাশ, তিন ফুট দূরত্বে ক্লাসরুমের বেঞ্চ ক্লাসরুমে সর্বোচ্চ ১৫ শিক্ষার্থী, প্রতি বেঞ্চে ১ জন - dainik shiksha ক্লাসরুমে সর্বোচ্চ ১৫ শিক্ষার্থী, প্রতি বেঞ্চে ১ জন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে প্রস্তুতি ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে প্রস্তুতি ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে please click here to view dainikshiksha website