এমপিওর আবেদনে হ-য-ব-র-ল, শিক্ষকদের নির্ঘুম রাত - এমপিও - দৈনিকশিক্ষা

এমপিওর আবেদনে হ-য-ব-র-ল, শিক্ষকদের নির্ঘুম রাত

নিজস্ব প্রতিবেদক |

করোনার মধ্যেই চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ, কোড নম্বর দেয়া ও শিক্ষক-কর্মচারীদের ঈদের আগেই বকেয়াসহ এমপিওর টাকা দেয়ার  উদ্যোগ নেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। জরুরীভিত্তিতে সংশ্লিষ্টদে সাথে ডিজিটাল পদ্ধতিতে সভা করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি। সভার পর গত সপ্তাহে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনস্ত তিনটি অধিদপ্তরকে নির্দেশ দেয়া হয় নতুন এমপিওভুক্ত ২ হাজার ছয়শ’র বেশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোড নম্বর দেয়া ও নিযুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের এমপিওভুক্ত করার। মে মাসেই যেন তারা বেতন-ভাতা পান সেটাও বলা হয়। কিন্তু মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের অধীন ইএমআইএস সেলের দুই/তিন জন কর্মকর্তার অদক্ষতা, উদাসীনতা ও অনভিজ্ঞ লোকদের দিয়ে সফটওয়্যার তৈরি ও রক্ষণাবেক্ষন করায় মন্ত্রণালয়ের শুভ উদ্যোগটি ভেস্তে যেতে বসছে। সারাদেশ থেকে তিনটি অধিদপ্তরের অধীন শিক্ষকরাই কম-বেশি অভিযোগ করছেন। তারা বলছেন সার্ভার অচল, ডাউন থাকা এবং দূর্বল ব্যবস্থাপনার জন্য আবেদন করা যাচ্ছে না। সবচাইতে বেশি অভিযোগ নিম্ন মাধ্যমিক ও মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষকদের। যেকোনও সমস্যার জন্য হটলাইনে দেয়া নম্বরগুলোর বেশিরভাই কলই কেউ রিসিভ করছেন না। বিশ/ত্রিশ বার কল করার পর রিসিভ করে শিক্ষকদের সাথে খারাপ ব্যবহার করেন কেউ কেউ।  সারাদেশ থেকে গত তিনদিন ধরে শিক্ষকরা আবেদন করতে না পারার অভিযোগ করছেন। অভিযোগ আমলে নিয়ে একদিন সময় বৃদ্ধি করলেও কোনো ফল হয়নি ৫ মে দুপুর পর্যন্ত।

শিক্ষকদের অভিযোগ, সার্ভার ডাউন তাই আবেদন করতে পারছেন না। তিনদিন ধরে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন তারা। প্রথমে চেষ্টা করেছেন প্রতিষ্ঠান থেকে  আবেদন করতে। পরে দোকানে গেছেন। সেখানে গিয়েও সমাধান পাচ্ছেন না। আজ ৫ মে একাধিক উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা দৈনিক শিক্ষাকে বলেছেন, কিছু শিক্ষক আবেদন করতে পারলেও তাদের তথ্য যাচাই করতে আমাদের বেধে দেয়া সময়ের মধ্যে শেষ করতে পারবো বলে মনে হয় না। কারণ, সার্ভার ডাউন পাই অথবা ঘুরছে অথবা ফেইল দেখাচ্ছে।  

ভুক্তভুগী শিক্ষকরা বলছেন, হার্ডকপি জমা নেয়ার উদ্যোগ নিতে। তাছাড়া ঈদের আগে তারা বেতন-ভাতার টাকা হাতে পাবেন। এখন আবেদন করতে না পারলে পরে বকেয়ার জন্য শিক্ষা অধিদপ্তরের ইএমআইএস সেলে কর্মকর্তা ও দালালদের ধরতে হবে। তাদেরকে কমিশন না দিয়ে অতীতে কেউ বকেয়া পাননি। 

ঢাকার সিংহরা স্কুলের প্রধান শিক্ষক প্রবীর রন্জন দৈনিক শিক্ষাকে টেলিফোনে বলেন, সার্ভার জটিলতার সমাধান ও ঈদের আগে বেতন-ভাতা পাওয়ার বিষয়ে জরুরি পদক্ষেপ নিতে শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনির হস্তক্ষেপ কামনা করছেন সারাদেশের নতুন এমপিওভুক্ত স্কুল শিক্ষকরা।  

এদিকে আজ ৫ মে মাধ্যমিক ও নিম্ন মাধ্যমিক প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষক-কর্মচারীরা এমপিওর আবেদনের সময় শেষ হচ্ছে।  তবে, নতুন এমপিওভুক্ত কলেজ শিক্ষকদের আবেদনের শেষ সময় ৬ মেই থাকছে। ১৩ মের মধ্যে এমপিও আবেদন অগ্রায়ণ করতে বলা হয়েছে আঞ্চলিক উপ-পরিচালক ও পরিচালকদের। সার্ভার ও সফটওয়্যার জটিলতায় শিক্ষকরা এমপিওভুক্তির জন্য আবেদন করতে না পারায় সময় বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে৷  

৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু - dainik shiksha ৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! - dainik shiksha এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ - dainik shiksha বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! - dainik shiksha ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি - dainik shiksha নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ - dainik shiksha উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ please click here to view dainikshiksha website