গুলিতে নিহত কওমি মাদরাসা শিক্ষকের কাছে যেতেন আইপিএলের জুয়াড়িরাও - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা

গুলিতে নিহত কওমি মাদরাসা শিক্ষকের কাছে যেতেন আইপিএলের জুয়াড়িরাও

বগুড়া প্রতিনিধি |

মহাসড়কে প্রকাশ্যে খুন হওয়া 'বাবা হুজুর' নামে পরিচিত স্থানীয় একটি কওমি মাদরাসার পরিচালক মোজাফফর রহমান ঝাড়ফুঁক, তাবিজ-কবজসহ নানা কবিরাজি চিকিৎসা করতেন। প্রেম-বিয়ে, সম্পত্তি নিয়ে মামলা, স্বামী-স্ত্রীতে অমিল- এসব নানা সমস্যা নিয়ে মানুষ তার কাছে যেতেন। এমনকি আইপিএল নিয়ে স্থানীয় যেসব যুবক জুয়া খেলতেন তারাও 'বাবা হুজুর'র কাছে আসতেন। কোন দিনের খেলায় কোন দল জিতবে সে সম্পর্কে তিনি 'তদবির' করতেন। মোজাফফর রহমানের প্রতিষ্ঠিত আল জামিয়া আল আরাবিয়া দারুল হেদায়া কওমি হাফেজিয়া মাদরাসা এলাকার একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

আরও পড়ুন : 

দৈনিক শিক্ষাডটকম পরিবারের প্রিন্ট পত্রিকা ‘দৈনিক আমাদের বার্তা’

বগুড়ায় মাদরাসা পরিচালককে গুলি করে হত্যার ঘটনায় মামলা

এদিকে মোজাফফর রহমান হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের এখনও শনাক্ত বা গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। নিহত মোজাফফরের ভাই সাইফুল ইসলাম বগুড়ার শাজাহানপুর থানায় একটি মামলা করলেও আসামি হিসেবে কারও নাম উল্লেখ করেননি।

বগুড়ায় পুলিশের মিডিয়া বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ বলেছেন, মোজাফফর রহমান হত্যা পরিকল্পিত এটা তারা নিশ্চিত হয়েছেন। কিন্তু কী কারণে হত্যা করা হয়েছে সে সম্পর্কে এখনও কোনো তথ্য পাননি। তিনি বলেন, মোজাফফর রহমান কবিরাজি অর্থাৎ ঝাড়ফুঁক ও তাবিজ-কবজ করতেন। তার অনেক জমিজমাও রয়েছে। হত্যাকাণ্ডের পেছনে এসবের কোনো যোগসূত্র রয়েছে কিনা সেগুলো খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

শাজাহানপুর থানার ওসি আব্দুল্লা আল মামুন বলেন, মোজাফফর হত্যাকাণ্ডের মোটিভ জানার জন্য তারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। নিহতের ভাই যে মামলা করেছেন সেখানে কারও নাম উল্লেখ করা হয়নি। আইপিএলের জুয়াড়িদের বিষয়ে তিনি বলেন, সব দিক মাথায় রেখেই তদন্ত চলছে। আশা করছি খুব তাড়াতাড়ি হত্যার কারণ ও জড়িতদের গ্রেপ্তার করা সম্ভব হবে।

নাটোরের সিংড়া থেকে মঙ্গলবার সকালে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় বগুড়ায় ফেরার পথে সন্ত্রাসীরা মোজাফফরকে গুলি করে হত্যা করে।

দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন

পরীক্ষা এক বছর না দিলে ক্ষতি হবে না : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha পরীক্ষা এক বছর না দিলে ক্ষতি হবে না : শিক্ষামন্ত্রী সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩০ জুন পর্যন্ত - dainik shiksha সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩০ জুন পর্যন্ত ৫ শর্তে অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়োগ পরীক্ষা নেয়ার অনুমতি দিলো ইউজিসি - dainik shiksha ৫ শর্তে অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়োগ পরীক্ষা নেয়ার অনুমতি দিলো ইউজিসি এনটিআরসিএর নতুন চেয়ারম্যানকে আদালত অবমাননার মামলায় অন্তর্ভুক্তির নির্দেশ - dainik shiksha এনটিআরসিএর নতুন চেয়ারম্যানকে আদালত অবমাননার মামলায় অন্তর্ভুক্তির নির্দেশ এক স্কুলশিক্ষার্থীর শরীরে করোনা পেয়েই তড়িঘড়ি ৩ দিনের লকডাউন - dainik shiksha এক স্কুলশিক্ষার্থীর শরীরে করোনা পেয়েই তড়িঘড়ি ৩ দিনের লকডাউন গভীর রাতে পরীক্ষার সময় রেখে পাবিপ্রবিতে রুটিন প্রকাশ - dainik shiksha গভীর রাতে পরীক্ষার সময় রেখে পাবিপ্রবিতে রুটিন প্রকাশ ২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত - dainik shiksha ২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত লকডাউন বাড়লে পেছাতে পারে বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা - dainik shiksha লকডাউন বাড়লে পেছাতে পারে বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে ৬ষ্ঠ-৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ষষ্ঠ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ - dainik shiksha ৬ষ্ঠ-৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ষষ্ঠ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ please click here to view dainikshiksha website