চাঁদ দেখা নিয়ে পাকিস্তানে বিতর্ক, রোজা কাজা করার আহ্বান - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

চাঁদ দেখা নিয়ে পাকিস্তানে বিতর্ক, রোজা কাজা করার আহ্বান

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

পাকিস্তানের জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান মুফতি মুনিবুর রহমান দাবি করেছেন, শাওয়াল মাসের চাঁদ না দেখেই চাঁদ দেখা কমিটি ঈদ পালনের ঘোষণা দিয়েছে। 

তাই পাকিস্তানের মুসলমানদেরকে সম্বোধন করে তিনি বলেন, আপনারা এক দিনের রোজা ও এক দিনের ই’তিকাফের কাজা করে নিন। 

তিনি বলেন, পাকিস্তানের বর্তমান চাঁদ দেখা কমিটির মনগড়া এই সিদ্ধান্তের জন্য সারারাত আমি কেঁদেছি।খবর এক্সপ্রেস নিউজ উর্দুর। 

বৃহস্পতিবার ঈদ জামাতের আগে করা বয়ানে মুফতি মুনিবুর রহমান বলেন, সরকারের মর্জিমাফিক চলতে পারে এমন পুতুল একটি চাঁদ দেখা কমিটি বানানো হয়েছে। তারা কাসেম খান মসজিদের মুফতি শিহাবুদ্দীনের অপেক্ষায় ছিল। যখনই তিনি চাঁদ দেখার ঘোষণা দিলেন, তখন চাঁদ দেখা কমিটিও ঈদের ঘোষণা করল। 

এর আগে বুধবার রাত ১১.৩২-এ চাঁদ দেখা যাওয়ার ঘোষণা দেয় পাকিস্তানের জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি। এর আগে পর্যন্ত সবাইকে অপেক্ষায় রাখা হয়।

পাকিস্তানের আবহাওয়া বিভাগ আগেই জানিয়েছিল, বর্তমান পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের আকাশে বুধবার চাঁদ দেখা যাওয়ার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ। সন্ধ্যার পর সাক্কুর, লাহোর, করাচি ও কোয়েটার আঞ্চলিক কমিটিগুলো ঘোষণা করে দেয় যে তাদের এলাকায় চাঁদ দেখা যায়নি।

সবাই যখন শুক্রবারে ঈদ করার প্রস্তুতি সম্পন্ন করছে, তখনই পেশোয়ারে চাঁদ দেখার তথ্য পাওয়া যেতে থাকে। 

ইসলামাবাদে রুয়াত-ই-হিলাল কমিটির চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুল খবির আজাদ সংবাদ সম্মেলনে জানান, বেলুচিস্তানের চামান, কিল্লা সাইফুল্লাহ ও পাসনি, খাইবার পাখতুনখাওয়ার পেশোয়ার ও সিন্ধুর মিরপুরখাস থেকে চাঁদ দেখার খবর পাওয়া গেছে। ফলে বৃহস্পতিবারই ঈদ হবে। তবে এমন সিদ্ধান্তে পাকিস্তানের অনেক আলেম অসন্তোষের কথা জানিয়েছেন। 

প্রাইমারি স্কুল-কিন্ডারগার্টেনের ছুটিও ৩১ আগস্ট পর্যন্ত - dainik shiksha প্রাইমারি স্কুল-কিন্ডারগার্টেনের ছুটিও ৩১ আগস্ট পর্যন্ত লকডাউন আরও ১০ দিন বাড়ানোর সুপারিশ - dainik shiksha লকডাউন আরও ১০ দিন বাড়ানোর সুপারিশ রপ্তানিমুখী সব শিল্পকারখানা খুলছে রোববার - dainik shiksha রপ্তানিমুখী সব শিল্পকারখানা খুলছে রোববার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে আগে শিক্ষার্থী ভর্তি করানো ঠিক হবে না : ইউজিসি - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে আগে শিক্ষার্থী ভর্তি করানো ঠিক হবে না : ইউজিসি ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ দুঃখ প্রকাশ করলে শিক্ষক সমাজ লজ্জার হাত থেকে রক্ষা পায় - dainik shiksha ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ দুঃখ প্রকাশ করলে শিক্ষক সমাজ লজ্জার হাত থেকে রক্ষা পায় এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের তিন বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্ট করতে হবে - dainik shiksha এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের তিন বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্ট করতে হবে নিয়মনীতিহীন আইপি টিভির বিরুদ্ধে অচিরেই ব্যবস্থা : তথ্যমন্ত্রী - dainik shiksha নিয়মনীতিহীন আইপি টিভির বিরুদ্ধে অচিরেই ব্যবস্থা : তথ্যমন্ত্রী ‘অন্য দেশের মডেল নিয়ে বাংলাদেশের শিক্ষার মানোন্নয়ন সম্ভব নয়’ - dainik shiksha ‘অন্য দেশের মডেল নিয়ে বাংলাদেশের শিক্ষার মানোন্নয়ন সম্ভব নয়’ দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় please click here to view dainikshiksha website