জ্ঞানার্জনের আগ্রহী না হলেও টাকা অর্জনের আগ্রহ আছে সবার : অধ্যাপক কায়কোবাদ - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

জ্ঞানার্জনের আগ্রহী না হলেও টাকা অর্জনের আগ্রহ আছে সবার : অধ্যাপক কায়কোবাদ

কুবি প্রতিনিধি |

বিশিষ্ট কম্পিউটার বিজ্ঞানী, শিক্ষক, কলামিস্ট এবং লেখক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ বলেছেন, শিক্ষায় বেশি বেশি প্রণোদনা  দিতে হবে। পুরস্কারের লোভে হলেও জ্ঞান অর্জন করবে শিক্ষার্থীরা। জ্ঞানার্জনের আগ্রহ না থাকলেও টাকা অর্জনের আগ্রহ আছে সবার।

বৃহস্পতিবার কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) গণিত বিভাগ এবং বিভাগের অঙ্গসংগঠন ম্যাথমেটিক্স ক্লাবের উদ্যোগে ‘রিসেন্ট অ্যাডভান্সমেন্ট ইন ম্যাথমেটিক্স এন্ড অ্যাপ্লিকেশন ইন রিয়েল লাইফ’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান বক্তার বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। 

ব্রাক ইউনিভার্সিটির ‘ডিসটিংগুইজড প্রফেসর’ ড. কায়কোবাদ আরও বলেন, একটি দেশ উন্নয়নের একমাত্র উপায় হল মানবসম্পদ উন্নয়ন। যেখানে আমাদের যথেষ্ট অনাগ্রহ আছে। মানব সম্পদ উন্নয়নে মনোযোগী হতে হবে৷ 

বাংলাদেশের গবেষণার চিত্র নিয়ে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশে অনেকেই ভালো গবেষণা করে। তার মধ্যে একজন হলেন জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটির প্রফেসর মামুন। উনার সাইটেশন অনেক। ছাত্রদের নিয়ে সাতদিনই ইউনিভার্সিটিতে থাকেন। এই মানুষগুলোকে  আমরা চিনিনা, জানিনা। আবার অনেকে আছে পড়াশোনা করার আগে পত্রিকাতে যায়।  গবেষণা করার আগে জানাতে চায় বিরাট একটা কিছু করে ফেলছি। এরা হলো ভুল মানুষ।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তোমরা কখনো হতাশাগ্রস্ত হবেনা। নিজেদের প্রমাণ করতে হবে। যেখানে চ্যালেঞ্জ আছে সেখানে নিজেকে প্রমাণ করার সুযোগ থাকে। হারিয়ে গেলে চলবেনা। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে সকাল সাড়ে ৯ টায় বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. খলিফা মোহাম্মদ হেলালের সভাপতিত্বে এ সেমিনার শুরু হয়। সেমিনারে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সোসাইটি ফর ম্যাথেটিকাল বায়োলজির (বিএসএমবি) প্রেসিডেন্ট ও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যাথমেটিক্স ডিসিপ্লিনের অধ্যাপক ড. হায়দায় আলী বিশ্বাস। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা সেমিনারে অংশ নেন। ম্যাথ ফেস্ট-২০২২ এর আয়োজন শেষ হচ্ছে আজ।  ফেস্টের শেষ দিনে সেমিনার ছাড়াও আরও থাকছে সাবেক শিক্ষার্থীদের ইনডোর গেমস ও বিদায় অনুষ্ঠান,নবীনবরণ এবং সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা।

চূড়ান্ত নিয়োগ সুপারিশ পেলেন পৌনে পাঁচ হাজার নতুন শিক্ষক - dainik shiksha চূড়ান্ত নিয়োগ সুপারিশ পেলেন পৌনে পাঁচ হাজার নতুন শিক্ষক চাকরি ছেড়ে পালাচ্ছেন জাল শিক্ষকরা - dainik shiksha চাকরি ছেড়ে পালাচ্ছেন জাল শিক্ষকরা প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব পদে পরিবর্তন - dainik shiksha প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব পদে পরিবর্তন সভাপতির বাড়িতে মাদরাসার নিয়োগ পরীক্ষা নয় - dainik shiksha সভাপতির বাড়িতে মাদরাসার নিয়োগ পরীক্ষা নয় শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের সিরিজ জয় - dainik shiksha শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের সিরিজ জয় please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.0043020248413086