দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর : তথ্য গোপন করে নেয়া অনুদানের টাকা ফেরত - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

দৈনিক শিক্ষায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর : তথ্য গোপন করে নেয়া অনুদানের টাকা ফেরত

সাখাওয়াত হোসেন সাখা, রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি |

তথ্য গোপন করে নন-এমপিও শিক্ষকদের জন্য বরাদ্দ করা অনুদানের টাকা নিয়েছিলেন কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার সরকারি শিক্ষক, ফ্যামিলি প্লানিং পরিদর্শকসহ অনেকেই। গত ৫ জুলাই বিশেষ শিক্ষা বিষয়ক একমাত্র পত্রিকা দৈনিক শিক্ষাডটকমে ‘নন-এমপিও শিক্ষকদের অনুদানের তালিকায় সরকারি শিক্ষক, ফ্যামেলি প্ল্যানিং পরিদর্শক’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এরপর টনক নড়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) দুপুরে সরকারি শিক্ষক, এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের সকল শিক্ষক ও কর্মচারী এবং ফ্যামেলি প্ল্যানিং পরির্দশকসহ নন-এমপিও অনুদান শর্তের বাইরে থেকেও টাকা নেয়া প্রত্যেকে চেক ফেরত দিয়েছেন। রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আল ইমরান দৈনিক শিক্ষা ডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন: নন-এমপিও শিক্ষকদের অনুদানের তালিকায় সরকারি শিক্ষক, ফ্যামেলি প্ল্যানিং পরিদর্শক

অনুদানের চেক ফেরত দেয়ার বিষয় জানতে চাইলে দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়ন ফ্যামেলি প্ল্যানিং পরিদর্শক আব্দুল হাকিম দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, ‘কলেজে নন-এমপিও শিক্ষক অনুদানের তালিকায় অর্ন্তভুক্ত হয়ে ৫ হাজার টাকা’র চেক নেয়া অন্যায় হয়েছিল। তাই ওই অনুদানের চেক ফেরত দিয়েছি।’

অনুদানের চেক ফেরত বিষয়ে সুখেরবাদি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক এ কে এম মোজাম্মেল হক দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন,‘ কলেজে নন-এমপিও শিক্ষক তালিকায় অর্ন্তভুক্ত হয়ে অনুদানের চেক নিয়েছি। এতে অন্যায় হয়েছে, তাই অনুদানের ৫ হাজার টাকা ফেরত দিয়েছি।’

এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এ বি এম নকিবুল হাসান বলেন, ‘দৈনিক শিক্ষাডটকমে সংবাদ প্রকাশের পর সরকারি শিক্ষক ও ফ্যামেলি প্ল্যানিং পরিদর্শকসহ অনেকের কাছ থেকে অনুদানের চেক ফেরত নেয়া হচ্ছে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আল ইমরান দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, কিভাবে সহকারী শিক্ষক এবং এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা নন-এমপিও শিক্ষকদের তালিকায় স্থান পেয়েছেন তা খতিয়ে দেখতে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তদন্ত করছে। আশা করা যায়, দুই একদিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়া যাবে। প্রতিবেদন হাতে এলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গত ৪ জুলাই বিকালে উপজেলা চত্বরে নন-এমপিও ২০৪ জন শিক্ষক ও ৮৮ জন কর্মচারীর হাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া জরুরি আর্থিক অনুদানের চেক তুলে দেয়া হয়। অনুদানের তালিকায় সরকারি শিক্ষকসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে চাকরিজীবীদের নাম অর্ন্তভুক্ত করার অভিযোগ উঠে।

করোনাকালে লক্ষাধিক নন এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের বিতরণের জন্য জরুরি ৪৬ কোটি ৬৩ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা। এ টাকা ৮০ হাজার ৭৪৭ জন শিক্ষক ও ২৫ হাজার ৩৮ জন কর্মচারীর মধ্যে বিতরণ করা হচ্ছে।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

কঠোর বিধিনিষেধ বাড়তে পারে আরও এক সপ্তাহ : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha কঠোর বিধিনিষেধ বাড়তে পারে আরও এক সপ্তাহ : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন কিন্ডারগার্টেনের ১০০ শিক্ষক - dainik shiksha প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন কিন্ডারগার্টেনের ১০০ শিক্ষক বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ও স্টাডি সেন্টার বিদ্যমান আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক - dainik shiksha বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ও স্টাডি সেন্টার বিদ্যমান আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক দুই ধরনের দুই ডোজ টিকা নিলে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে - dainik shiksha দুই ধরনের দুই ডোজ টিকা নিলে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে করোনার প্রভাবে শিক্ষক এখন কচু ব্যবসায়ী - dainik shiksha করোনার প্রভাবে শিক্ষক এখন কচু ব্যবসায়ী মিতু হত্যা : সাবেক এসপি বাবুল আক্তারকে প্রধান আসামি করে মামলা - dainik shiksha মিতু হত্যা : সাবেক এসপি বাবুল আক্তারকে প্রধান আসামি করে মামলা ঘরে বসেই নতুন শিক্ষকদের ১০ দিনের অনলাইন প্রশিক্ষণ - dainik shiksha ঘরে বসেই নতুন শিক্ষকদের ১০ দিনের অনলাইন প্রশিক্ষণ এমপিও কমিটির ভার্চুয়াল সভা ১৭ মে - dainik shiksha এমপিও কমিটির ভার্চুয়াল সভা ১৭ মে শিক্ষক পাবেন পাঁচ হাজার, কর্মচারী আড়াই হাজার টাকা করে - dainik shiksha শিক্ষক পাবেন পাঁচ হাজার, কর্মচারী আড়াই হাজার টাকা করে সেহরি ও ইফতারের সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সূচি দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে ‘কওমি মাদরাসায় জাতীয় চেতনা ও সংস্কৃতিবোধ উপেক্ষিত’ - dainik shiksha ‘কওমি মাদরাসায় জাতীয় চেতনা ও সংস্কৃতিবোধ উপেক্ষিত’ please click here to view dainikshiksha website