‘প্রশ্নকর্তা উদ্দেশ্যমূলক এটা করেছে, মডারেটরদেরও কঠিন শাস্তি দেয়া হবে’ - দৈনিকশিক্ষা

‘প্রশ্নকর্তা উদ্দেশ্যমূলক এটা করেছে, মডারেটরদেরও কঠিন শাস্তি দেয়া হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক |

ঢাকা বোর্ডের এইচএসসির বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষার প্রশ্নপত্র নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে প্রণীত প্রশ্নপত্র ধর্মীয় সংবেদনশীলতাকে ক্ষুণ্ন করেছে, দেয়া হয়েছে সাম্প্রদায়িক উসকানি। তবে, এ ধরনের প্রশ্ন তৈরি সঙ্গে জড়িত প্রশ্নকর্তা ও মডারেটরদের খুঁজে বের করে কঠিন শাস্তি দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাবকমিটির সভাপতি ও ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার।

সোমবার সকালে দৈনিক শিক্ষাডটকমের পক্ষ থেকে করা এক প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান তিনি। 

চেয়ারম্যান বলেন, বিজি প্রেসে প্রশ্নের পান্ডুলিপি জমা আছে। সেখান থেকে আগামীকাল মঙ্গলবারের মধ্যে ওই প্রশ্ন তৈরিতে সংশ্লিষ্ট প্রশ্নকর্তা ও মডারেটরদের খুঁজে বের করা হবে।

তিনি আরও বলেন, এ ধরণের প্রশ্ন তৈরিতে জড়িত প্রশ্নকর্তা ও মডারেটরদের কঠিন শাস্তি দেয়া হবে। আগামীকাল মঙ্গলবারের মধ্যেই তাদের খুঁজে বের করা যাবে। 

অধ্যাপক তপন কুমার সরকার বলেন, সাম্প্রদায়িক ও বিদ্বেষপূর্ণ কোনো বক্তব্য যেন না থাকে সে জন্য প্রশ্নপত্র প্রণয়নে লিখিত নির্দেশনা দেয়া হয়। প্রশ্নপত্র প্রণয়নে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা নিয়ে ওরিয়েন্টশন করানো হয়। প্রশ্নপত্র দেখার কোনো সুযোগ নেই। প্রশ্নকর্তা উদ্দেশ্যমূলকভাবে এটা করেছে।

আরও পড়ুন : এইচএসসির বাংলা প্রশ্নপত্রে সাম্প্রদায়িক উসকানির অভিযোগ

গতকাল রোববার নয়টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এইচএসসির বাংলা প্রথম পত্র পরীক্ষা হয়।

ঢাকা বোর্ডের বাংলা প্রথম পত্র প্রশ্নে সাম্প্রদায়িক উসকানি দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তরের জন্য উদ্দীপকে অনেক প্রাসঙ্গিক উদাহরণ টানা যেতো। কিন্তু এখানে সাম্প্রদায়িক উসকানি দিয়ে প্রশ্ন প্রণয়ন করা হয়েছে।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।
দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল   SUBSCRIBE  করতে ক্লিক করুন।

শিক্ষকের কোচিংয়ে ছাত্রকে পিটিয়ে রক্তাক্ত - dainik shiksha শিক্ষকের কোচিংয়ে ছাত্রকে পিটিয়ে রক্তাক্ত মাধ্যমিকের মূল্যায়ন জরিপে কক্ষ পর্যবেক্ষক হতে শিক্ষকদের তালিকা আহ্বান - dainik shiksha মাধ্যমিকের মূল্যায়ন জরিপে কক্ষ পর্যবেক্ষক হতে শিক্ষকদের তালিকা আহ্বান নটর ডেম কলেজের নামে ভর্তি কোচিং, সর্তক করলো কর্তৃপক্ষ - dainik shiksha নটর ডেম কলেজের নামে ভর্তি কোচিং, সর্তক করলো কর্তৃপক্ষ নতুন কারিকুলাম দশম শ্রেণি পর্যন্ত কার্যকর হবে - dainik shiksha নতুন কারিকুলাম দশম শ্রেণি পর্যন্ত কার্যকর হবে কওমি মাদরাসা: একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে - dainik shiksha কওমি মাদরাসা: একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে ঈদের পরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শনিবার খোলা নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha ঈদের পরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শনিবার খোলা নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী পদোন্নতি পেতে ঢাবি শিক্ষকদের প্রশিক্ষণে ৭০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে - dainik shiksha পদোন্নতি পেতে ঢাবি শিক্ষকদের প্রশিক্ষণে ৭০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.0040898323059082