প্রসঙ্গ এসএসসি ভোকেশনাল শিক্ষাক্রমের মূল্যায়ন - মতামত - দৈনিকশিক্ষা

প্রসঙ্গ এসএসসি ভোকেশনাল শিক্ষাক্রমের মূল্যায়ন

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

সাধারণ শাখার বোর্ড সমাপনী পরীক্ষার চূড়ান্ত মূল্যায়নে ১০০ নম্বরের মধ্যে ৩০ নম্বর বহুনির্বাচনী ও ৭০ নম্বরের সৃজনশীল। সৃজনশীল প্রশ্নপত্রে প্রতিটি বিষয়ে ১০ নম্বরের ৭টি করে প্রশ্ন থাকে। অন্যদিকে এসএসসি ভোকেশনাল শিক্ষাক্রমের ৬০ নম্বরের সৃজনশীল প্রশ্নপত্রে প্রতিটি বিষয়ে প্রশ্ন থাকে ৫ নম্বরের ১২টি করে।

তাই ভোকেশনাল শাখায় সাধারণ শাখার মতো প্রশ্নপত্রের নম্বর একই হওয়া প্রয়োজন। বর্তমান প্রচলিত প্রবিধানের তাত্ত্বিক অংশের ধারাবাহিক মূল্যায়ন ৪০ নম্বর ও চূড়ান্ত মূল্যায়ন ৬০ নম্বরের পরিবর্তে মোট নম্বরের ৫০ নম্বর বোর্ড চূড়ান্ত পরীক্ষার জন্য এবং ৫০ নম্বর ধারাবাহিক মূল্যায়নের জন্য নির্ধারিত থাকবে। সোমবার (১৯ জুলাই) ইত্তেফাক পত্রিকায় প্রকাশিত এক চিঠিতে এ তথ্য জানা যায়।

চিঠিতে আরও জানা যায়, অর্থাত্ সাধারণ শাখার মতো বর্ষমধ্য ও চূড়ান্ত পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের প্রশ্নপত্রে অনুষ্ঠিত হবে; পরবর্তী সময়ে ১০০ নম্বরকে ৫০ নম্বরে রূপান্তর করে ধারাবাহিক অংশ হিসাবে দেওয়া হবে, একইভাবে চূড়ান্ত পরীক্ষার ১০০ নম্বরকে ৫০ নম্বরে রূপান্তর করা হবে। তত্ত্বীয় বিষয় বা বিষয়ের তত্ত্বীয় অংশের ধারাবাহিক মূল্যায়ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সম্পন্ন করবে এবং এর নম্বর বিন্যাস হবে বর্ষমধ্য পরীক্ষা ৫০, ক্লাস টেস্ট, কুইজ টেস্ট ও অ্যাসাইনমেন্ট (প্রতিটির জন্য বর্ষমধ্য পরীক্ষার আগে ন্যূনতম ২টি এবং পরে ২টি) ৪০, উপস্থিতি ১০, মোট ১০০।

আরও পড়ুন : দৈনিক শিক্ষাডটকম পরিবারের প্রিন্ট পত্রিকা ‘দৈনিক আমাদের বার্তা’

বর্ষমধ্য পরীক্ষা ১০০ নম্বরে প্রশ্নপত্রে অনুষ্ঠিত হলেও প্রথমে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান ঐ ১০০ নম্বরকে ৫০-এ রূপান্তর করে ধারাবাহিক নম্বরের সঙ্গে যোগ করতে হবে। পরে ঐ নম্বরকে বোর্ড পুনরায় ৫০-এ রূপান্তর করবে অর্থাত্ মধ্যবর্ষ পরীক্ষার বোর্ড পরীক্ষায় ১০০ নম্বরে হলেও শিক্ষার্থী ২৫ নম্বর প্রাপ্ত হবে।

ব্যবহারিক ও তত্ত্বীয় বিষয়ের প্রতি অংশে (ধারাবাহিক ও চূড়ান্ত) পাশ নম্বর হবে শতকরা ৩৩। সাধারণ শাখার মতো ধারাবাহিক ও চূড়ান্ত মূল্যায়ন তত্ত্বীয় বিষয় বা কোনো বিষয়ের তত্ত্বীয় অংশের লিখিত পরীক্ষার একই সময় নির্ধারিত হবে। ১০০ নম্বরের তত্ত্বীয় অংশের ক্ষেত্রে ১০ নম্বরের ৭টি প্রশ্নের জন্য ৭০ নম্বর এছাড়া বহু নির্বাচনী অংশে ১ নম্বরের ৩০টি প্রশ্ন থাকবে।

দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন

ট্রেড বিষয়ের ক্ষেত্রে ১০০ নম্বরের তত্ত্বীয় অংশ (সৃজনশীল ছাড়া) ১০ নম্বরের ৭টি প্রশের জন্য ৭০ নম্বরের মধ্যে প্রতিটি প্রশ্নের ক-১ নম্বর, খ-২ নম্বর, গ-৩ নম্বর ও ঘ-৪ নম্বর নির্ধারিত থাকবে। সব বিষয়ের বহু নির্বাচনী পরীক্ষার ক্ষেত্রে পৃথক কোনো প্রশ্নপত্র ও উত্তরপত্র দেওয়া হবে না, জেএসসি পরীক্ষার মতো একই উত্তরপত্রে উত্তর দিতে হবে, এক্ষেত্রে উত্তরপত্রের প্রথম পাতায় ১ থেকে ৩০ নম্বর ঘরে ক, খ, গ, ঘ লিখে রিখতে হবে উত্তর। ফলে এসএসসি ভোকেশনাল শিক্ষাক্রমের মূল্যায়ন পদ্ধতি সহজ হবে ও শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়বে।

লেখক: রিপন কুমার দাস, ট্রেড ইন্সট্রাক্টর, পটুয়াখালী

মাদরাসা শিক্ষকদের জুলাই মাসের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের জুলাই মাসের এমপিওর চেক ছাড় প্রাইমারি স্কুল-কিন্ডারগার্টেনের ছুটিও ৩১ আগস্ট পর্যন্ত - dainik shiksha প্রাইমারি স্কুল-কিন্ডারগার্টেনের ছুটিও ৩১ আগস্ট পর্যন্ত দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় ১৪ আগস্টের মধ্যে এক কোটি টিকা দেয়া হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী - dainik shiksha ১৪ আগস্টের মধ্যে এক কোটি টিকা দেয়া হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসএসসি পরীক্ষার্থীদের যেসব অ্যাসাইনমেন্ট সংশোধন - dainik shiksha এসএসসি পরীক্ষার্থীদের যেসব অ্যাসাইনমেন্ট সংশোধন সব স্কুল-কলেজ একদিন পর পর পরিষ্কার করার নির্দেশ - dainik shiksha সব স্কুল-কলেজ একদিন পর পর পরিষ্কার করার নির্দেশ এমপির বিরুদ্ধে অধ্যাপকের জিডি - dainik shiksha এমপির বিরুদ্ধে অধ্যাপকের জিডি চাচার ঋণে স্কুলছাত্রীর বৃত্তির টাকা আটকে দিলো ব্যাংক - dainik shiksha চাচার ঋণে স্কুলছাত্রীর বৃত্তির টাকা আটকে দিলো ব্যাংক টিকা নিতে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে শিক্ষকদের - dainik shiksha টিকা নিতে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে শিক্ষকদের সরকারি কলেজের ৬৬ শিক্ষককে বদলি - dainik shiksha সরকারি কলেজের ৬৬ শিক্ষককে বদলি please click here to view dainikshiksha website