১১ হাজার ৭৬৯ নতুন শিক্ষক নিয়োগ : নির্বাচিতদের তালিকা দেখুন - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

১১ হাজার ৭৬৯ নতুন শিক্ষক নিয়োগ : নির্বাচিতদের তালিকা দেখুন

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১৫ হাজারের বেশি শিক্ষক নিয়োগের বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল ও তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তিতে যোগদান না করা পদগুলোতে দ্বিতীয় ধাপের সুপারিশের জন্য ১১ হাজার ৭৬৯ জন নির্বাচিত হয়েছেন। রোববার দুপুরে ১টা ৪০ মিনিট দিকে নির্বাচিত প্রার্থীরা এসএমএস পাওয়া শুরু করেছেন। দুপুরেই নির্বাচিত প্রার্থীদের তালিকা নির্ধারিত ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে এনটিআরসিএ। এসব প্রার্থীদের পুলিশ ভেরিফিকেশনের পর চূড়ান্ত সুপারিশ করা হবে। তাদের আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত ভি-রোল ফরম পাঠানোর সুযোগ দেয়া হচ্ছে। রোববার দুপুরে এনটিআরসিএর এক কর্মকর্তা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এদিকে এনটিআরসিএর বিষয়টি জানিয়ে আলাদা আলাদা বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে।

জানা গেছে, প্রার্থীরা ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে ফল দেখতে পারবেন। 

বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল দেখতে ক্লিক করুন :

দ্বিতীয় ধাপের সুপারিশ দেখতে ক্লিক করুন

জানা গেছে, বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তিতে শিক্ষক পদে নিয়োগ সুপারিশ পাচ্ছেন ৪ হাজার ৭৫২ জন। আর তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তিতে যোগদান না করা পদগুলোতে দ্বিতীয় ধাপের সুপারিশ পাচ্ছেন ৭ হাজার ১৭ জন প্রার্থী। পুলিশ ভেরিফিকেশনের পর প্রার্থীদের চূড়ান্ত নিয়োগ সুপারিশ করা হবে।

এনটিআরসিএ জানিয়েছে, প্রার্থীদের চার কপি চাকরি জীবন বৃত্তান্ত ফরম বা ভি রোল ফরম পূরণ করে এনটিআরসিএ কার্যালয়ে সরাসরি বা ডাকযোগে ৩০ জুন বিকেল ৫টার মধ্যে পাঠাতে হবে। পুলিশ ভেরিফিকেশন ফরম ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করতে হবে। 

ভিরোল জমা দেয়ার সময় খামের ওপর নিবন্ধন পরীক্ষার ব্যাচ, রোল নম্বর, নিজ জেলা ও মোবাইল নম্বর আবশ্যিকভাবে লিখিতে হবে বলেও জানিয়েছে এনটিআরসিএ। 

আর দ্বিতীয় ধাপের সুপারিশ প্রাপ্তদের এনটিআরসিএ বলছে, নির্বাচিত প্রার্থীদের মধ্যে কেউ তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তির আওতায় নিয়োগ সুপারিশ পেয়ে থাকলে তাদের কে নিয়োগের সুপারিশ পত্রের কপি ডাউনলোড করতে হবে। ওইসব প্রার্থীর ভিআর ফরম দাখিলের প্রয়োজন হবে না। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে এনটিআরসিএর এক কর্মকর্তা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, রোববার দুপুর দেড়টার পর প্রার্থীরা সুপারিশের এসএমএস পাওয়া শুরু করেছেন। তাদের এসএমএস পাঠিয়ে বিষয়েটি জানানো হচ্ছে। সুপারিশপ্রাপ্তদের ৩০ জুন পর্যন্ত ভি-রোল ফরম পূরণ করে এনটিআরসিএতে পাঠানোর নির্দেশনা দেয়া হচ্ছে। যারা ভি রোল ফরম পাঠাবেন তাদের সুপারিশ করা হবে। আর ওয়েবসাইটে সুপারিশপ্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। 

মোট সাড়ে ২২ হাজার শিক্ষক পদে প্রার্থীদের নিয়োগের প্রাথমিক সুপারিশের পরিকল্পনা থাকলেও বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির সব পদে আবেদন পায়নি এনটিআরসিএ। সকালে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানান, এ গণবিজ্ঞপ্তিতে ৮ হাজার ৩৫৯ জনের আবেদন পাওয়া গেছে। এরমধ্য থেকে মেধা ও চাহিদার ভিত্তিতে ৪ হাজার ৭৫২ জন নিয়োগ সুপারিশ পাচ্ছেন। এর ৪ হাজার ১৮৫ টি পদ এমপিও এবং ৫৬৭ টি পদ নন এমপিও। নতুন নিয়োগ সুপারিশের জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের ২ হাজার ৫০৪ জন সাধারণ ধারার স্কুল-কলেজে এবং ২ হাজার ২৪৮ জন মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ সুপারিশ পাচ্ছেন।

মন্ত্রী আরও জানান, তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তিতে যোগদান না করা ৭ হাজার ১৭ টি পদে আবেদন করা পরবর্তী প্রার্থীদের নিয়োগ সুপারিশ করা হচ্ছে। এসব পদের ৬ হাজার ২০৫ টি এমপিও এবং ৮১২টি ননএমপিও। দ্বিতীয় ধাপের সুপারিশের জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের ৪ হাজার ৫৩৯ জন সাধারণ ধারার স্কুল-কলেজে এবং ২ হাজার ৪৭৮ জন মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ সুপারিশ পাচ্ছেন। মোট নিয়োগ সুপারিশের জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের মধ্যে পুরুষ ৭ হাজার ৭০৪ জন এবং নারী ৪ হাজার ৬৫ জন।

বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি অনুসারে ১৫ হাজার ১৬৩ শিক্ষক পদে আবেদন নেয়া হয়েছিলো। এ গণবিজ্ঞপ্তির ১৫ হাজারের বেশি পদে ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন নেয়া হয়। এরমধ্যে এমপিও পদ ছিলো ১২ হাজার ৮০৭টি ও ননএমপিও পদ ছিলো ২ হাজার ৩৫৬টি। এসব পদে ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৪০৭টি আবেদন পাওয়া গিয়েছিল।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল   SUBSCRIBE   করতে ক্লিক করুন।

ঈদের পরে এসএসসি পরীক্ষা, তারিখ নির্ধারণ হয়নি - dainik shiksha ঈদের পরে এসএসসি পরীক্ষা, তারিখ নির্ধারণ হয়নি মিলিটারি ডিকটেটররা ছাত্রদের হাতে অস্ত্র-মাদক তুলে দিয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha মিলিটারি ডিকটেটররা ছাত্রদের হাতে অস্ত্র-মাদক তুলে দিয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী পদ্মাসেতু: বড় পরিবর্তনের সুযোগ শিক্ষায় - dainik shiksha পদ্মাসেতু: বড় পরিবর্তনের সুযোগ শিক্ষায় প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ : ফল পুনর্মূল্যায়ন চেয়ে ৫ পরীক্ষার্থীর রিট - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ : ফল পুনর্মূল্যায়ন চেয়ে ৫ পরীক্ষার্থীর রিট বন্যা চলে গেলেই পরীক্ষা নেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha বন্যা চলে গেলেই পরীক্ষা নেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৩ জুলাই থেকে বন্ধ মাধ্যমিক বিদ্যালয় - dainik shiksha ৩ জুলাই থেকে বন্ধ মাধ্যমিক বিদ্যালয় please click here to view dainikshiksha website