১০ লাখ টাকার বিনিময়ে শিবিরকর্মীকে মাদরাসায় নিয়োগ - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা

১০ লাখ টাকার বিনিময়ে শিবিরকর্মীকে মাদরাসায় নিয়োগ

দিনাজপুর প্রতিনিধি |

দিনাজপুরের পার্বতীপুরের জাহানাবাদ দারুল উলুম আলিম মাদরাসায় অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর পদে মনারুল ইসলাম মুন্না নামে এক শিবিরকর্মীকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। নিয়োগ দেন মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রইচ উদ্দীন প্রামাণিক।

শুক্রবার সকালে উপজেলার তালিমুন্নেছা মাদরাসায় এই নিয়োগ পরীক্ষা হয়। অভিযোগ উঠেছে, ১০ লাখ টাকার বিনিময়ে এই শিবিরকর্মীকে নিয়োগ দেয় পরিচালনা কমিটি।

জানা যায়, পার্বতীপুর উপজেলার চণ্ডীপুর ইউনিয়নের জাহানাবাদ দারুল উলুম মাদরাসায় অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। শুক্রবার পরীক্ষা নেওয়ার জন্য মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড থেকে প্রতিনিধি এসে পরীক্ষা গ্রহণ করেন। পরীক্ষায় সাত প্রার্থী অংশ নিলেও শিবিরকর্মী মনারুল ইসলামকে মনোনীত করা হয়। মনারুলের বাড়ি শহরের বাবুপাড়া মহল্লায়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহদপ্তর সম্পাদক মমিনুল মাস্টার সাংবাদিকদের বলেন, শহরের বাবুপাড়ার মনারুল ইসলাম মুন্না জামায়াত-শিবিরের সঙ্গে যুক্ত। এলাকার সবাই তাকে শিবিরকর্মী হিসেবে চেনে। শিবিরের ছেলেদের সঙ্গে তার সারাদিন চলাফেরা। যার প্রমাণ আওয়ামী লীগের হাতে আছে।

মাদরাসার অধ্যক্ষ একরামুল হক সাংবাদিকদের বলেন, মুন্নাকে বিধি অনুযায়ী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। সে জামায়াত-শিবিরের কর্মী কিনা জানা নেই।

মাদরাসার সভাপতি উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রইচ উদ্দীন প্রামাণিক বলেন, পরীক্ষায় যে প্রথম হয়েছে, তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। প্রার্থীর কাছ থেকে কোনো টাকা নেওয়া হয়নি।

অভিযোগের বিষয়ে মতামত জানতে মনারুল ইসলাম মুন্নার সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।  তার মোবাইল ফোনও বন্ধ পাওয়া যায়।

আপাতত ক্লাস সপ্তাহে ১ দিন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha আপাতত ক্লাস সপ্তাহে ১ দিন : শিক্ষামন্ত্রী পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসির ফল প্রকাশে আইন পাস, দু’দিনেই প্রজ্ঞাপন - dainik shiksha পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসির ফল প্রকাশে আইন পাস, দু’দিনেই প্রজ্ঞাপন ৯ম গ্রেডে উন্নীত করার দাবিতে একাট্টা হচ্ছে সব সরকারি কর্মচারী সংগঠন - dainik shiksha ৯ম গ্রেডে উন্নীত করার দাবিতে একাট্টা হচ্ছে সব সরকারি কর্মচারী সংগঠন নো মাস্ক নো স্কুল, ক্লাস হবে শিফটে : দুশ্চিন্তায় বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান - dainik shiksha নো মাস্ক নো স্কুল, ক্লাস হবে শিফটে : দুশ্চিন্তায় বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাংবাদিকতার অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছিলেন মিজানুর রহমান : স্মরণসভায় জেলা জজ - dainik shiksha সাংবাদিকতার অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছিলেন মিজানুর রহমান : স্মরণসভায় জেলা জজ প্রাথমিকে ঝরে পড়ার হার প্রায় শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে, দাবি প্রতিমন্ত্রীর - dainik shiksha প্রাথমিকে ঝরে পড়ার হার প্রায় শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে, দাবি প্রতিমন্ত্রীর মাদরাসা শিক্ষার সমস্যার সমাধান দ্রুতই : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষার সমস্যার সমাধান দ্রুতই : শিক্ষা উপমন্ত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইড লাইন প্রকাশ, তিন ফুট দূরত্বে ক্লাসরুমের বেঞ্চ - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইড লাইন প্রকাশ, তিন ফুট দূরত্বে ক্লাসরুমের বেঞ্চ ক্লাসরুমে সর্বোচ্চ ১৫ শিক্ষার্থী, প্রতি বেঞ্চে ১ জন - dainik shiksha ক্লাসরুমে সর্বোচ্চ ১৫ শিক্ষার্থী, প্রতি বেঞ্চে ১ জন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে প্রস্তুতি ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে প্রস্তুতি ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে please click here to view dainikshiksha website