মাদরাসা শিশু ধর্ষণ নিয়ে লেখা উপন্যাস 'বিষফোঁড়া' নিষিদ্ধ - বই - দৈনিকশিক্ষা

মাদরাসা শিশু ধর্ষণ নিয়ে লেখা উপন্যাস 'বিষফোঁড়া' নিষিদ্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

কওমি মাদ্রাসার শিশুদের ধর্ষণের ঘটনা নিয়ে লেখা ‘বিষফোঁড়া’ উপন্যাসটি বাংলাদেশে নিষিদ্ধ করেছে সরকার।

এ উপন্যাসকে ‘জননিরাপত্তার জন্য হুমকি’ হিসেবে বিবেচনা করে তা নিষিদ্ধের ঘোষণা দিয়ে গত ২৪ অগাস্ট গেজেট প্রকাশ করেছে সরকার।

সেখানে বলা হয়, “সরকারের কাছে এ মর্মে প্রতীয়মান হয় যে, সাইফুল বাতেন টিটো রচিত ও নারায়ণগঞ্জ আড়াইহাজারের জালাকান্দির ‘জংশন’ প্রকাশিত কওমি মাদ্রাসার শিশু ধর্ষণ উপাখ্যান ‘বিষফোঁড়া’ উপন্যাসটির বিষয়বস্তু দেশের শান্তি-শৃঙ্খলার পরিপন্থি।

“ইতোমধ্যে উপন্যাসটি জননিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে বিবেচিত হওয়ায় বাংলাদেশে বইটি নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হল।”

জংশন প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী মোশাররফ মাতুব্বর বৃহস্পতিবার বলেন, গত ফেব্রুয়ারি মাসে একুশে বইমেলায় উপন্যাসটি প্রথম প্রকাশিত হয়। প্রথম মুদ্রণের ৫০০ কপি মেলাতেই বিক্রি হয়েছে।

“তখন পুলিশ এসে ২০ কপি নিয়ে গিয়েছিল। এই উপন্যাসে যেহেতু ধর্মীয় কোনো বিতর্কিত কনটেন্ট নেই, শুধু কওমি মাদ্রাসায় শিশু ধর্ষণ নিয়ে বলা হয়েছে, তাই পুলিশের পক্ষ থেকে আমাদের আর কিছু বলা হয়নি।”

উপন্যাসটি যে নিষিদ্ধ করা হচ্ছে বা হতে পারে সে বিষয়ে তাদের সঙ্গে কেউ কথা বলেননি বলে জানান মোশাররফ।

তিনি বলেন, “ছাড় দেওয়ার পর বইমেলায় উপন্যাসটির প্রতি কপি ১৯২ টাকায় বিক্রি করা হয়। প্রথম মুদ্রণ শেষ হওয়ার পর রিয়াজ ওসমানী নামে একজন ইংল্যান্ডপ্রবাসী বাংলাদেশি আমাদের মাধ্যমে এর দ্বিতীয় মুদ্রণ করিয়ে বিপণনের দায়িত্ব নেন। আমরা এখন আর উপন্যাসটি বিক্রি করছি না।”

বই মেলায় স্টল পেতে একটি প্রকাশনীর যে পরিমাণ বই থাকতে হয় সেই শর্ত পূরণ করতে না পারায় গত বই মেলায় স্টল পায়নি ‘জংশন’। সে কারণে একটি লিটল ম্যাগাজিনের স্টল থেকে উপন্যাসটি বিক্রি করা হয়েছিল বলে জানান মোশাররফ।

উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ১ হাজার ৮৮ শিক্ষক - dainik shiksha উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ১ হাজার ৮৮ শিক্ষক প্রাথমিকে শিক্ষকসহ অন্যান্য পদ ‘বাড়ছে’ - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষকসহ অন্যান্য পদ ‘বাড়ছে’ ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষাবিমা’ চার্জমুক্ত রাখার নির্দেশ - dainik shiksha ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষাবিমা’ চার্জমুক্ত রাখার নির্দেশ এমপিওভুক্ত হলেন দেড় হাজার শিক্ষক-কর্মচারী - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হলেন দেড় হাজার শিক্ষক-কর্মচারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে এখনো সংক্রমণের খবর আসেনি : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে এখনো সংক্রমণের খবর আসেনি : শিক্ষামন্ত্রী স্বরাষ্টমন্ত্রীর সঙ্গে মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান নেতাদের মত বিনিময় - dainik shiksha স্বরাষ্টমন্ত্রীর সঙ্গে মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান নেতাদের মত বিনিময় শিক্ষকদের একটা বড় অংশ ঘটনাচক্রে শিক্ষক : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষকদের একটা বড় অংশ ঘটনাচক্রে শিক্ষক : শিক্ষামন্ত্রী ডিসেম্বর পর্যন্ত ভোকেশনাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা - dainik shiksha ডিসেম্বর পর্যন্ত ভোকেশনাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা বিএড স্কেল পেলেন ৫৮ শিক্ষক - dainik shiksha বিএড স্কেল পেলেন ৫৮ শিক্ষক please click here to view dainikshiksha website